ধর্ষণ : সাম্প্রতিক ভয়াবহতা



নিষ্ঠুরতা আর নির্মমতায় উত্থিত লিঙ্গ যখন বিদ্ধ করে নারীকে, কেটে চিরে রক্ত ঝরায়, ভোগের পর শিয়াল-কুকুরের মতো পথে ফেলে যায় জীবিত কিংবা মৃত, তখন শুধু নারী নয় মানুষ হিসেবে শিউরে উঠতে হয়।  এর জন্য বাড়তি সংবেদনশীলতার প্রয়োজন নেই। এই মর্মান্তিক মৃত্যুর অধিক বেদনা অনুভবের জন্য শিক্ষিত-দীক্ষিত মেধা ও মনন নিষ্প্রয়োজন। বলছি সাম্প্রতিককালের ভয়াবহতম অপরাধ ধর্ষণের কথা। এখনই সময় সর্বস্তরে কথা বলার, সচেতন হবার। দৃঢ় হাতে প্রতিহত করার। দায়বদ্ধতা এবং ধর্ষণের বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়ার প্রকাশের জায়গা থেকেই গত ১৬ অক্টোবর ২০১৭ গাঁথার নিয়মিত আলোচনা অনুষ্ঠিত হলো।

আলোচনায় অংশগ্রহণ করেছিলেন অ্যাডভোকেট মাকসুদা আক্তার লাইলী, লিগ্যাল এইড বিভাগ, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ; ড. মাসু্দুজ্জামান, বিশিষ্ট কবি, সাহিত্যসমালোচক এবং অধ্যাপক, শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়; এবং ড. গীতিআরা নাসরিন, বিশিষ্ট গবেষক ও অধ্যাপক, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। ধর্ষণের মতো ভয়াবহ অপরাধের বৃদ্ধি, ধর্ষণপরবর্তী নৃশংসতা, এর কারণ, প্রতিকার ও প্রতিরোধ বিষয়ে আইনগত, সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে গুরুত্বপূর্ণ কিছু ইশ্যু আলোচিত হলো।

অ্যাডভোকেট মাকসুদা আক্তার লাইলী ধর্ষণজনিত আইনানুগ ব্যবস্থার উল্লেখ করেছেন, এছাড়াও তার বক্তব্যে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার, জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য, সাইকোসোশ্যাল ইন্সটিটিউটের আইনগত ও মানসিক সহায়তার কথা উঠে এসেছে।

অধ্যাপক এবং গবেষক গীতিআরা নাসরীন কী কারণে পুরুষ ধর্ষণ করতে প্ররোচিত হয় সে-বিষয়গুলো উল্লেখ করেছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি জর্জিয়া স্টেট ইউনিভার্সিটির একটি সমীক্ষার ১২ হাজার উত্তর বিশ্লেষণ করে পাওয়া ব্যক্তিগত এবং সামাজিক কারণগুলো চিহ্নিত করে বিশদ আলোচনা করেন।

সবশেষে আলোচনা করেন অধ্যাপক ও বিশিষ্ট কবি ড. মাসুদুজ্জামান। তিনি তার বক্তব্যে পুরুষতান্ত্রিক সমাজব্যবস্থার দৃষ্টিভঙ্গি উল্লেখ করে মিডিয়াকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। বলেছেন শুধু ধর্ষণের খবর নয় ফলোআপ করবে মিডিয়া। শক্তিশালী ক্যাম্পেইন করবে। পাঠ্যবইতেও  তিনি সচেতনতামূলক লেখা অন্তর্ভুক্ত করার ব্যাপারে গুরুত্ব দেন।

আলোচনা অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন গাঁথার সভাপতি কথাসাহিত্যিক পাপড়ি রহমান।

ধর্ষণের মতো ঘৃণ্য অপরাধের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান আরো দৃঢ় হোক। শত ব্যস্ততার মাঝেও  সভায় যারা উপস্থিত ছিলেন ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই তাদের সবাইকে।

জয়তু গাঁথা।


2,914 Comments